বায়ার্ন-বার্সেলোনা মহারণে কে জিতবে?

  মঙ্গলবার | সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১ | ০২:২২ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক

গত দুই মৌসুম ধরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সুবিধা করে উঠতে পারছে না বার্সেলোনা। সর্বশেষ মৌসুমে পিএসজির বিপক্ষে লজ্জাজক হারে বিদায় নিয়েছে। তার আগের মৌসুমে লিওনেল মেসির শৈশবের দল ৮-২ গোলের পাহাড়সম ব্যবধানে হারে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে। বিধ্বংসী সেই বায়ার্নের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই এবারের মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ যাত্রা শুরু হচ্ছে স্প্যানিশ ক্লাবটির।

১৪ সেপ্টেম্বর রাত একটায় গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। মেসিবিহীন বার্সা ও বায়ার্ন ম্যাচের এবারের ফলাফল কী আগের মতোই হবে নাকি আরও লজ্জার?

মেসি না থাকলেও ক্লাবকে নিয়ে বড় আশা দেখছেন বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যান। ম্যাচকে সামনে রেখে সংবাদ সম্মলনে তিনি বলেন, আমরা ক্লাবের থেকে সর্বোচ পারফরম্যান্স আশা করি। সেগুলো নিয়ে আলোচনা করা হবে। ক্লাবের সভাপতির সঙ্গেও এ নিয়ে কথা হয়েছে। আসলে আমাদের সম্পর্ক খুবই ভালো।

এর আগে কোম্যান মেসিকে ছাড়া বার্সা কেমন খেলবে এমন প্রশ্নের অবতারণায় বলেছিলেন, মেসি নেই, তবু আমাদের পথ চলতে হবে।

মেসি বার্সা ছাড়ার সময়েই কাতালান ক্লাবটি য়্যুভেন্তাসের বিপক্ষে হোয়ান গাম্পার ট্রফিতে খেলে। যেখানে তুরিনের বুড়িদের ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেয় বার্সেলোনা। মেম্ফিস ডিপাই, মার্টিন ব্রাথওয়েট ও রিকুই পুজ একটি করে গোল করেন দলের জয়ে। তখন দুঃখ ভারাক্রান্ত কোম্যানের মনে বয়ে গেল সুখের আভাস। সেটা তিনি শিষ্যদের মধ্যে ছড়িয়ে দিলেন এই বলে যে, এটাই স্বাভাবিক। যখন মেসির মতো কোনো প্লেয়ার চলে যায় তখন সেটা সহ্য করা কষ্টদায়কই, সবার জন্য। তবু আমাদের এগিয়ে যেতে হবে, কারণ আমরা পরিস্থিতির পরিবর্তন করতে পারব না।

ফুটবল সব সময় দলগত খেলা। এ কারণেই মেসি-রোনালদোরাও মাঝে মাঝেই ছোট দলগুলোর বিপক্ষেই ব্যর্থ হন। কোম্যানও শিষ্যদের পরামর্শ দিয়েছেন দলগতভাবে শক্ত হয়ে উঠতে, আমাদের ভালো খেলতে হবে, জয় পেতে হবে এবং আরও কঠিন পরিশ্রম করতে হবে। এখানে অন্য খেলোয়াড়রা রয়েছে, যারা নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে খেললে দলে একটা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা হবে। আমাদের এখন মেসি নেই, তবু সবকিছু চালিয়ে যেতে হবে।

খেলোয়াড়দের মোটিভেশন দেওয়ার পাশাপাশি কোম্যান চেষ্টা করেন উত্তপ্ত দর্শকদেরও শান্ত করতে। আমরা মেম্ফিস ডিপাইকে দলে নিয়েছি। সে য়্যুভেন্তাসের বিপক্ষে নিজেকে প্রমাণ করেছে। ও আমাদের দলের জন্য খুবই কার্যকরী হতে পারে। দলের মধ্যভাগের খেলোয়াড়দের গোল করে অবদান রাখতে ঘবে। সব মিলিয়ে সবাইকে উন্নতি করতে হবে। পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ খেলোয়াড়কে আমরা সবাই সবসময় মিস করব। তবে সবাইকে এটা গ্রহণও করতে হবে।