৭ হাজার পয়েন্ট ছাড়াল ডিএসইর সূচক

ব্যাংক, বিমা এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ প্রায় সব খাতের শেয়ারের দাম বাড়ায় সূচকের তেজিভাবের মধ্যদিয়ে শুরু হয়েছে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) দেশের পুঁজিবাজারের লেনদেন।

ফলে লেনদেনের প্রথম ৫ মিনিটে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ৫৪ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৩৫ পয়েন্ট অতিক্রম করেছে। যা সূচকটির ইতিহাসে নতুন মাইল ফলক।

শুধু তাই নয়, ডিএসইর ইতিহাসে সাড়ে ১১ বছরের মধ্যে এ প্রথম সূচক সাত হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করলো।

এর আগে ২০১০ সালের মহাধসের পর ২০১১ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ডিএসইর তৎকালীন প্রধান সূচক ছিল ৭ হাজার ১২৫ পয়েন্টে। এরপর পুরাতন সূচকটি পুনগঠন করে ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারিতে প্রধান সূচকের হিসেবে চালু করা হয় ডিএসইএক্স সূচকটি।

ডিএসই তথ্য মতে, বৃহস্পতিবারে মতোই রোবাবারও লেনদেন শুরু হয় সূচক উত্থানের মধ্যদিয়ে। আর তাতে লেনদেনের প্রথম ১৫ মিনিটেই ডিএসইর প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ৬৪ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়ায় ৭ হাজার ৪৬ পয়েন্টে। ডিএসইর অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস ১৩ পয়েন্ট এবং ডিএস-৩০ সূচক আগের দিনের চেয়ে ২০ পয়েন্ট বেড়েছে।

এই সময়ে ৩৬১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৮২টির কমেছে ৪৭টির আর অপরিবর্তি রয়েছে ৩২টি কোম্পানির শেয়াররের। সব মিলে লেনদেনের প্রথম ১৫মিনিটে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪৭ কোটি ৬৭ লাখ ৪৬ হাজার টাকা।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ৮৩ পয়েন্ট বেড়ে ২০ হাজার ৪১১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর লেনদেন হওয়া কোম্পনিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৮টির, কমেছে ১০টির আর অপরিবর্তি রয়েছে ৪টি কোম্পানির শেয়ার। এই সময়ে লেনদেন হয়েছে মাত্র ৩ কোটি ১ লাখ ৮২ হাজার টাকা