কোভিডের বিরুদ্ধে দীপ্ত জয়ের ঘোষণা উত্তর কোরিয়ার : জ্বরে আক্রান্ত ছিলেন কিম

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন কোভিডের বিরুদ্ধে দীপ্ত জয়ের ঘোষণা দিয়েছেন। এদিকে তার বোন জানিয়েছেন, কোভিডের প্রাদুর্ভাবের সময়ে কিম জ্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন।
তিনি তার দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ার জন্যে দক্ষিণ কোরিয়াকে দায়ী করেন। কিম স্বাস্থ্যকর্মী ও বিজ্ঞানীদের সভায় কোভিডের বিরুদ্ধে এ বিজয় ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি বৃহস্পতিবার এ কথা জানিয়েছে।
উত্তর কোরিয়া প্রথম থেকেই করোনা ভাইরাসের বিষয়টি চাপা দিয়ে আসছিল, কিন্তু মে মাসে ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টি স্বীকার এবং জরুরি সর্বোচ্চ মহামারি প্রতিরোধ ব্যবস্থা গ্রহণ করে।
উ. কোরিয়া ভাইরাস পরীক্ষা করার সক্ষমতার অভাবে কোভিড সংক্রমিত রোগীদের জ্বরে আক্রান্ত বলে উল্লেখ করেছে।  
সরকারি হিসেবে বলা হয়েছে, ৪৮ লাখ লোক জ্বরে সংক্রমিত হয়েছে এবং মারা গেছে মাত্র ৭৪ জন। মৃত্যুর হার ০.০০২ শতাংশ। গত ২৯ জুলাই থেকে আর কেউ আক্রান্ত হয়নি।
ব্যাপক করতালির মধ্যে কিম বলেছেন, বিশ্বের জনস্বাস্থ্যের ইতিহাসে এটি নজিরবিহীন অলৌকিক ঘটনা। তিনি আরো বলেন, আমাদের জনগণের অর্জিত এ বিজয় একটি ঐতিহাসিক ঘটনা।
কেসিএনএ আরো জানিয়েছে, কিমের ক্ষমতাধর বোন কিম ইউ জং জানিয়েছেন, করোনা ছড়িয়ে পড়ার পর কিম অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তিনি তীব্র জ্বরে ভোগেন। এ সময়ে তিনি কোয়ারেন্টিনে ছিলেন।কিন্তু তিনি এক মুহূর্তের জন্যেও বিশ্রাম নেন নি। কারণ তিনি জনগণের কথা ভেবেছেন যাদের দায়দায়িত্ব তার নিজের।
উত্তর কোরিয়া প্রথমবারের মতো কিমের স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করেছে। কিমের স্বাস্থ্যগত দিক খুবই গোপনীয় বিষয়। ইউ জং আরো বলেছেন, উত্তর কোরিয়ায় করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পেছনে দক্ষিণ কোরিয়ার হাত রয়েছে।
তিনি প্রতিশোধ নেয়ার বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়াকে সতর্ক করেন।

সূত্র : বাসস